রাস্তায় ভিড় বিপণিবিতান ফাঁকা

নিজস্ব প্রতিবেদক: করোনাভাইরাসের ভয়াবহতার মধ্যেই সীমিত আকারে দোকানপাট খোলার অনুমতি দিয়েছে সরকার। এরপর থেকেই রাজধানী ফিরতে শুরু করেছে তার পুরোনো রূপে। চাপ বেড়েছে রাজধানীর রাস্তা ঘাটে। যদিও যাত্রীবাহী বাস ছাড়া, চলছে সব ধরণের যানবাহন।

পাশাপাশি চতুর্থ দিনের মত রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় খোলা হয়েছে বিপণিবিতান। আগের মত ভিড় না থাকলেও বেলা বাড়ার সাথে সাথে দেখা মিলছে কিছু ক্রেতার।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, সরকারের স্বাস্থ্যবিধি মেনে অল্প পরিসরে ১০ মে থেকে মার্কেট খুলেছি। আজ চতুর্থদিন চললেও বেচাকেনা জমে ওঠেনি। মার্কেটে দর্শনার্থী এলেও ক্রেতা নেই বললেই চলে। দিন শেষে বেচাকেনা হতাশ করছে আমাদের। করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় ক্রেতারা মার্কেটমুখী হচ্ছেন না। এমন অবস্থায় প্রতিদিনের দোকান খরচও তুলতে পারছি না।

এদিকে দোকানপাট, শপিংমলগুলো স্বাস্থ্যবিধি মেনে খোলার কথা বলা হলেও অনেকেই তা মানছেন না। সরকারি নির্দেশনায় বলা হয়েছিলো- রমজান ও ঈদ-উল-ফিতর সামনে রেখে সীমিত পরিসরে ব্যবসা-বাণিজ্য চালু রাখার স্বার্থে দোকানপাট খোলা রাখা যাবে। তবে ক্রয়-বিক্রয়কালে পারস্পরিক দূরত্ব বজায় রাখাসহ অন্য স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালন করতে হবে।

সরকারের এসব নির্দেশনা না মানায় ইতোমধ্যে রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোডের সানরাইজ মার্কেট বন্ধ করে দিয়েছে পুলিশ। এছাড়া দেশের অধিকাংশ জায়গায় দোকানপাট, শপিংমলে বন্ধ করে দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।

প্রসঙ্গত, করোনায় দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ১৯ জনের মৃত্যু হয়েছে; ফলে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ২৬৯-এ। এছাড়া একইদিনে সর্বোচ্চ ১১৬২ আক্রান্ত হয়েছেন। এনিয়ে মোট আক্রান্ত হয়েছেন ১৭ হাজার ৮২২ জন।

Share This: