ফোন করলেই বাড়িতে পৌঁছে যাবে খাদ্য

করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় হটলাইন চালু করেছে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলা প্রশাসন। হটলাইন ফোন দিয়ে যে কোনো তথ্য জানাতে পারবে রূপগঞ্জবাসী। যারা খাদ্য সংকটে রয়েছে তারা হটলাইনে ফোন দিয়ে খাদ্য চাইতে পারবে। আর খাদ্য চাওয়া মাত্রই রূপগঞ্জ উপজেলা প্রশাসন খাদ্য পৌঁছে দেবে ওই বাড়িতে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রূপগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মমতাজ বেগম। তবে খাদ্যের জন্য ঘর থেকে বের হওয়া যাবে না কাউকে।

তিনি জানান, আমাদের ১০টি হটলাইন চালু রয়েছে। বুধবার রূপসী ও গন্ধর্বপুর থেকে দুটি ফোনকল এসেছিলো। আমরা ওই পরিবার দু’টিতে স্বেচ্ছাসেবকদের মাধ্যমে খাদ্য পৌঁছে দিয়েছি।

তিনি বলেন, অনেক পরিবার আছে খাদ্যের জন্য কষ্ট করছে, কিন্তু লজ্জায় চাইতে পারছে না। ওইসব পরিবারের প্রতি অনুরোধ থাকবে আপনারা খাদ্যের জন্য কষ্ট করবেন না। হটলাইনে ফোন দিয়ে খাদ্য চাইবেন আপনাদের কাছে। আমরা খাদ্য পৌঁছে দেবো।

রূপগঞ্জবাসীর উদ্দেশে মমতাজ বেগম বলেন, করোনা প্রতিরোধে আপনারা আতঙ্কিত না হয়ে সচেতন হন। সরকারের নির্দেশনা এবং সামাজিক দূরত্ব মেনে চলুন। প্রশাসন কঠোর হচ্ছে। যারা নির্দেশ অমান্য করবে, তাদের কঠোর শাস্তি পেতে হবে। সবাই ঘরে অবস্থান করুন। নিজে বাঁচেন, অপরকে বাঁচান।

রূপগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের হটলাইন: রূপগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মমতাজ বেগম- ০১৭৬২-৬৯৪৬০১, ওসি মাহমুদুল হাসান-০১৭১৩-৩৭৩৩৫১, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহজাহান ভুইয়া- ০১৭১১-৫৩০৬৬৫।

প্রসঙ্গত, করোনা আতঙ্কে কাঁপছে সারা বিশ্ব। বাংলাদেশে সরকারি-বেসরকারি সব প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করেছে সরকার। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে সেনাবাহিনীর সহযোগিতায় নিয়মিত বাজার মনিটরিং করা হচ্ছে।

Share This: