কুড়িগ্রামের শাপলা চত্বরে অবরোধ নেপথ্য নায়কদের খুঁজছে পুলিশ

oc-2বিশেষ প্রতিবেদকঃ গতকাল মঙ্গলবার বিকালে কুড়িগ্রামের বিভিন্ন স্কুলের কোমলমতি শিক্ষার্থীরা নতুন নিয়মে সৃজনশীল পরীক্ষা বাতিলের দাবীতে আকষ্মিকভাবে শহরের জিরো পয়েন্ট শাপলা চত্বরে রাস্তার উপর অবরোধ শুরু করে। এ খবর পেয়ে কুড়িগ্রাম সদর থানার অফিসার ইনচার্জ এস,এম আব্দুস সোবহানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি সামাল দিতে হিমশিম খান। নেতৃত্বহীন কোমলমতি শিশুরা পুলিশের বাঁধা উপেক্ষা করে মিডিয়া কর্মীদের অপেক্ষায় সড়ক অবরোধ করে রাখে। পরে পুলিশকে সহায়তা করতে এগিয়ে আসেন জেলা আইনজীবি সমিতির সভাপতি পিপি এ্যাড. আব্রাহাম লিংকন, জেলা লিল্পকলা একাডেমীর সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ রাশেদুজ্জামান বাবু ও দৈনিক বাংলার মানুষ পত্রিকার বার্তা সম্পাদক আমিনুর রহমান। এনারাও কোমলমতি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য দিয়েও তাদেরকে নিবৃত্ত করতে বেগপান। পরে কুড়িগ্রাম সদর থানার অফিসার ইনচার্জ এস,এম আব্দুস সোবহান এবং জেলা আইনজীবি সমিতির সভাপতি পিপি এ্যাড. আব্রাহাম লিংকন টিভি ক্যামেরা নিয়ে এসে বিনা লাঠি চার্জে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের সড়ক থেকে সরিয়ে দেন।
এদিকে- কোমলমতি শিক্ষার্থীদের কারা আকষ্মিকভাবে রাস্তায় নামিয়ে দিয়ে পরিস্থিতি ঘোলাটে করার চেষ্টা করেছিল সেই বিষয়টি সম্পর্কে নিশ্চিত হতে পুলিশ নেপথ্য নায়কদের সন্ধান চালাচ্ছে।
এব্যাপারে কুড়িগ্রাম সদর থানার অফিসার ইনচার্জ এস,এম আব্দুস সোবহান তাৎক্ষনিক প্রতিক্রিয়ায় বলেন- যেসব কোমলমতি শিক্ষার্থীরা আকষ্মিকভাবে রাস্তা অবরোধ করেছিল; তারা ছিল নেতৃত্বহীন। তাদের উপর এ্যাকশন নেয়াও যাচ্ছিল না। আবার তারা কোন বুঝও মানছিল না। এমন শ্বাসরুদ্ধকর পরিস্থিতি খুব কৌশলে সামাল দিয়ে রোড ক্লিয়ার করে দেই। তবে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের কারা রাস্তায় নামিয়ে দিলো তা আমরা খতিয়ে দেখবো।
প্রসঙ্গক্রমে উল্লেখ্য- অবরোধকারী শিক্ষার্থীদের শান্ত করার জন্য তৎক্ষনাত দৈনিক বাংলার মানুষ পত্রিকার ওয়েব সাইটে অবরোধ সংক্রান্ত একটি ব্রেকিং নিউজ আপলোড করা হয়।

Share This: